বুধবার, ১২ জুন ২০২৪

|

জ্যৈষ্ঠ ২৮ ১৪৩১

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

আমি সরি, দুঃখিত, লজ্জিত : শামীম ওসমান 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ১৯:০৫, ২৯ মে ২০২৪

আমি সরি, দুঃখিত, লজ্জিত : শামীম ওসমান 

ফাইল ছবি

পানিবন্দি মানুষকে পানি থেকে উদ্ধার করা সওয়াবের কাজ বলে উল্লেখ করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান। 

সেইসাথে ডিএনডি অঞ্চলে জলাবদ্ধতার চিরস্থায়ী সমাধান না হওয়ায় দুঃখপ্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি। 

শামীম ওসমান বলেন, 'মসজিদ, বাড়িঘর সবকিছুর মধ্যে পানি ঢুকে গেছে। ভিডিও দেখেই বমি এসেছে আমার। আমার ছেলে গতকাল খাবার টেবিলে বলছে, আব্বু তুমি তাড়াতাড়ি যাও, সমস্যাটা শেষ করো। মসজিদের ভেতরেও বাথরুমের ময়লা পানি ঢুকে গেছে। আমি সরি, দুঃখিত, লজ্জিত।' 

বুধবার (২৯মে) বিকালে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার লালপুরে এলাকাবাসীর সাথে এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি। 

নেতাকর্মীরা তাকে জলাবদ্ধতা পরিস্থিতি নিয়মিতভাবে জানিয়েছেন উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, ভেবেছিলাম এবার আমরা সুফল পাবো৷ মানুষ মনে করে সাথে সাথে পানি নামবে, কিন্তু যে পরিমাণ বৃষ্টি হয়েছে তাতে কমপক্ষে ৭২ ঘণ্টা সময় লাগে পানি নামতে যদি আবার বৃষ্টি না হয়। এই এলাকার বাড়িঘরগুলো রাস্তা থেকে ২-৩ ফুট নিচে। পানির ফ্লো কখনও উপরে উঠে না, নিচের দিকে যায়। একারণেই এখানে জলাবদ্ধতা। আমরা এলজিআরডির কাছে একটা স্পেশাল প্রজেক্ট দিয়েছি। সেটি বাস্তবায়ন হলে জলাবদ্ধতা সমস্যার চিরস্থায়ী সমাধান হবে। 

এলজিআরডি বিভাগ ব্যর্থ কি না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে শামীম ওসমান বলেন, এলজিআরডি বিভাগ ব্যর্থ নয়। এলজিআরডি মন্ত্রী অত্যন্ত মেধাবী। হয়তো নিচের লেভেল থেকে উনি অবধি যায়নি বিষয়টি। সেনাবাহিনী ও এলজিআরডির লোকেরা এখানে এসে দেখে বলেছে নরমালভাবে পানি সরানো যাচ্ছে না, অন্য উপায়ে কীভাবে পানি সরানো যায়, সেজন্য ২টা স্পেশাল প্রজেক্ট করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। 

পানি নিষ্কাশনের প্রয়োজনীয় ট্রান্সফরমার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে দেওয়ার ঘোষণাও দেন তিনি। সেইসাথে যত্রতত্র ময়লা না ফেলতে ও ড্রেনগুলো পরিস্কার রাখতে জনসাধারণকে আহ্বান জানান।