শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪

|

আষাঢ় ৭ ১৪৩১

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

সিদ্ধিরগঞ্জে সম্পত্তির জেরে মুক্তিযুদ্ধার স্ত্রীকে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় অভিযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ১৩:৪৪, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সিদ্ধিরগঞ্জে সম্পত্তির জেরে মুক্তিযুদ্ধার স্ত্রীকে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় অভিযোগ

ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে জমি দখল নেয়াকে কেন্দ্র করে আপন বোনকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করার অভিযোগ উঠেছে তারই দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগী ওই নারী (নাসিক) ৯ নং ওয়ার্ডস্থ জালকুড়ি তালতলা এলাকার বীর মুক্তিযুদ্ধা সিরাজুল হকের স্ত্রী।

এ ঘটনায় (৫ সেপ্টেম্বর) ভুক্তভোগী জাহানারা বেগম নিজে বাদী হয়ে তার ভাইদের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন, নুরুল ইসলাম মোল্লা (৬০) এবং মোঃ হোসেন মোল্লা (৫৮)। 

অভিযোগসূত্রে জানা যায়, অভিযুক্তরা ভুক্তভোগী জাহানারা বেগমের আপন দুই ভাই। তাদের পিতার সম্পতি, যা তারা ৭ বোন ও ২ ভাই পৈত্রিক সম্পত্তিতে মালিক স্বত্ববানহয়ে সবাই নিজেদের নামে মিউটেশন করে। জাহানারা বেগমসহ তার বোনেরা তাদের ভাগের ওই জমি দখলে নেয়ার চেষ্টা করলে বিবাদীরা (দুই ভাই) তাদের বিভিন্ন সময় বাধা দেন। একপর্যায়ে গত ২ সেপ্টেম্বর সকালে ভুক্তভোগী ও তার বোনেরা তাদের পৈত্রিক সম্পত্তির জমি দখলে যাওয়ার চেষ্টা করলে বিবাদীরা পূনরায় এসে তাদের অকথ্য ভাষা গালমন্দ করে এবং সরাসরি হুমকি দেন যে, পরবর্তীতে যদি ওই জমি দখলের চেষ্টা করে তাহলে তাদের খুন করা হবে। 

এ বিষয়ে জাহানারা বেগমের বড় বোনের ছেলে নির্জ্জল বলেন, মোট ৩১ শতাংশ জমি থেকে ১৯ শতাংশ ৭৩ পয়েন্ট তার মাসহ সকল বোনেরা খাজনা দিয়ে আসছে। কিন্তু তার মামারা দীর্ঘদিন যাবত বোনদের অংশের সম্পত্তি বুঝিয়ে দিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছে। কিছুদিন আগে তার মামা নূর ইসলাম মোল্লা (অভিযুক্ত) তাদের হয়রানি করার লক্ষ্যে ১৪৫ ধারায় নারায়ণগঞ্জ কোর্টে তাদের ৮ জনকে আসামি করে একটি মামলা দিয়েছেন। অথচ ওই মামলায় জমির মালিক অর্থাৎ তার মা ও খালাদের আসামি না করে উল্টো খালাতো ভাইসহ তাকে আসামি করা হয়েছে। ওই মামলায় তার খালাতো ভাই এইচএসসি পড়ুয়া শিক্ষার্থীও রয়েছে।

এ বিষয়ে উক্ত অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই)  মশিউর রহমান নয়ন জানান, ভুক্তভোগী ওই নারীর অভিযোগটি আমার কাছে ছিলো। আমি দু'পক্ষকেই ডেকে থানায় বসেছিলাম। কিন্তু অপর পক্ষ (দুইভাই) আমাদের এখানে সমাধান না করে উল্টো কোর্টে একটি মামলা করেছে।