রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

|

চৈত্র ৩০ ১৪৩০

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

পুলিশের বাধায় কাঞ্চন বিএনপির পরিচিতি সভা পন্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ১২:৩৩, ৮ মে ২০২৩

আপডেট: ১২:৩৪, ৮ মে ২০২৩

পুলিশের বাধায় কাঞ্চন বিএনপির পরিচিতি সভা পন্ড

পরিচিতি সভা

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কাঞ্চন পৌরসভা বিএনপির নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভা বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ। এসময় আওয়ামীলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীদের দেশীয় অস্ত্র হাতে মহড়া দিতে দেখা গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এসময় অনুষ্ঠানস্থলের আশেপাশেই মহড়া দিতে দেখা গেছে আলোচিত কলি বাহিনীকেও।

সোমবার (৮ মে) চনপাড়া গ্রামে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কহিনুর আলমের বাসায় এ অনুষ্ঠানটি হবার কথা ছিল। তবে এর আগে ভোরে পুলিশ গিয়ে পরিচিতি সভার আয়োজন বন্ধ করে দেয় বলে জানান কাঞ্চন পৌরসভা বিএনপির সভাপতি মজিবুর রহমান ভুঁইয়া। এর আগে রাতভর সেখানে দেশীয় অস্ত্র হাতে মহড়া দেয় আওয়ামীলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা।

সকালে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি লিটুর নেতৃত্বে অনুষ্ঠানস্থলের পাশে মিছিল করে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা। এ ছাড়াও এসময় দেশীয় অস্ত্রহাতে মহড়া দেয়া ও অবস্থান করতে দেখা যায় একদল নেতাকর্মীদের। এ ছাড়াও উপজেলা আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এমায়েত হোসেনের ও পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রসুল কলি নেতাকর্মী নিয়ে অনুষ্ঠানস্থলের আশেপাশে অবস্থান নেন ও মহড়া দেন।

কাঞ্চন বিএনপির সভাপতি মজিবুর রহমান ভুঁইয়া বলেন, আমাদের নতুন কমিটি হয়েছে পৌরসভার সেই কমিটির নেতাদের পরিচিতি সভাই ছিল এটা। আমরা বেশ বড় আয়োজন করেছিলাম। দেড় হাজার লোকের আয়োজন ছিল খাবারের। সেগুলো সব নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও এখানে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতি আশা করছিলাম আমরা। আমাদের এ আয়োজনে কোন ধরনের শঙ্কা না থাকলেও রাতভর এখানে দেশীয় অস্ত্র হাতে ক্ষমতাসীনদের মহড়া দিতে দেখা গেছে। এর মধ্যে রাতে ৫ প্লাটুন পুলিশ এসে আমাদের নানাভাবে ধমক দিয়ে অনুষ্ঠান বন্ধ করে দিয়ে সকল সরঞ্জাম নিয়ে চলে গেছে। তবে আওয়ামীলীগ যে মহড়া দিচ্ছে সেদিকে পুলিশ কোন পদক্ষেপ নেয়নি।

তিনি জানান, আওয়ামীলীগের বাধা আমরা বাধা মনে করিনা কারণ তারা আমাদের কর্মসূচী হলেও বাধা দেয় মিছিল অরে মহড়া দেয়। তবে পুলিশ যদি আমাদের আয়োজন বন্ধ না করতো তাহলে যেকোন মূল্যে আমরা অনুষ্ঠানটি করতাম।

এর আগে বুধবার (৩ মে) বিএনপির আওয়ামীলীগ সমর্থিত একটি গ্রুপের ঈদ পুনর্মিলনী কাঞ্চন পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের বাজারের পাশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসময় পুলিশ ও আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা তাদের পাহাড়া দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মজিবুর রহমান ভুঁইয়াসহ দলের নেতাকর্মীরা।

এই কলি বাহিনীর বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টা, ভূমিদস্যুতাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। তার রয়েছে সন্ত্রাসী বাহিনীও। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে থানায়।

এর আগে গত ২ এপ্রিল কাঞ্চন পৌরসভা বিএনপির ১০১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে সভাপতি করা হয় মজিবুর রহমান ভুঁইয়াকে এবং সাধারণ সম্পাদক করা হয় মফিকুল ইসলাম খানকে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ জানান্, এ ধরনের কোন অনুষ্ঠানের পূর্বানুমতি ছিলনা। পুলিশ সেখানে যেন কোন ধরনের সমস্যা না হয় তাই পরিস্থিতি শান্ত রাখতে নজর রাখছে।