সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪

|

শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

সোনারগাঁয়ে দুই ভাইয়ে ঝগড়া মিমাংসা করতে গিয়ে ভাতিজার আঘাতে চাচার মৃত্যু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ১৩:১৯, ১০ জুলাই ২০২৪

সোনারগাঁয়ে দুই ভাইয়ে ঝগড়া মিমাংসা করতে গিয়ে ভাতিজার আঘাতে চাচার মৃত্যু

প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে সনমান্দি পূর্বপাড়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দুই ভাইয়ের ঝগড়া মিমাংসা করতে গিয়ে ভাতিজার লোহার পাইপের আঘাতে চাচা নাসির উদ্দিন (৫২) মৃত্যু হয়েছে। গতকাল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে গত শুক্রবার বিকেলে দুই ভাইয়ের ঝগড়ার এক পর্যায়ে লোহার পাইপের আঘাতে আহত হন।এ ঘটনায় আরো তিনজন আহত হয়। নিহত নাসির উদ্দিন সনমান্দি ইউনিয়নের পূর্ব সনমান্দি এলাকার মৃত কফিলউদ্দিনের ছেলে। আহতের ঘটনায় আহত জয়নাল আবেদিনের স্ত্রী জায়েদা বেগম সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। নিহতের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। 

নিহতের ভাতিজা আবু নাঈম জানান, শুক্রবার বিকেলে তার বাবা জয়নাল আবেদিন তাদের বাড়িতে একটি রান্নাঘর নির্মাণ করেন। এক পর্যায়ে তার বড় চাচা আব্দুর রব মিয়া তাদের বাঁধা দেন। তার বাবা ও চাচার বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে আব্দুর রবের ছেলে আবুল কাশেম ও হাসান মিয়া তাদের ঘর থেকে গ্যাসের পাইপ ও  লোহার রড নিয়ে তার বাবার উপর অতর্কিত হামলা করে। এসময় তার বাবা জয়নাল আবেদিনকে পিটিয়ে আহত করে। তাদের ডাক চিৎকারে তার আরেক চাচা নাসিরউদ্দিন এগিয়ে আসলে তার চাচাতো ভাই কাশেমের হাতে থাকা গ্যাসের পাইপ দিয়ে তার মাথায় আঘাত করে। এসময় নাসিরউদ্দিনকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এসময় চাচি আবেদা বেগম ও তার মা জায়েদা বেগমকেও পিটিয়ে জখম করে। 

আহতদের উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহতদের মধ্যে নাসিউদ্দিনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে প্রেরণ করে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে চিকিৎসাধীন তিনি মারা যান। 

সোনারগাঁ থানার ওসি এসএম কামরুজ্জামান বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধ মিমাংসা করতে গিয়ে আহত নাসিরউদ্দিন চিৎিসাধীন অবস্থায় মারা যান। আহতের ঘটনায় একটি অভিযোগ গ্রহন করা হয়েছে। যেহেতু আহতদের মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।