শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২

|

অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

সব অ্যাম্বাসেডর মিলে বললেও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ১৭:৩৯, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

আপডেট: ১৮:৩৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

সব অ্যাম্বাসেডর মিলে বললেও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না

ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, আমেরিকার অ্যাম্বাসেডর বা অন্য কোনো দেশের অ্যাম্বাসেডর বা সব দেশের অ্যাম্বাসেডর মিলে বললেও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না।   

তিনি বলেন, আমরা চাই, বিএনপিসহ ছোট বড় সব দলই নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করুক।

সব দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে শেষ দিন পর্যন্ত আমরা চেষ্টা করে যাবো।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।  

টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামে আয়োজিত সভায় ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বিএনপি বলছে, তত্ত্বাবধায়ক সরকার না হলে নির্বাচনে যাবে না। সংবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশে আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না। সংবিধানে স্পষ্ট লেখা রয়েছে, নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনা করবে। সরকার নির্বাচন কমিশনকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে। আজ বিএনপি যে মহড়া দিচ্ছে, লাঠির মধ্যে বাংলাদেশের পতাকা লাগিয়ে মিছিল ও সমাবেশ করছে, সব মিলিয়ে তারা সন্ত্রাসের দিকে যাচ্ছে। ২০১৩-১৫ সাল পর্যন্ত যেভাবে মোকাবিলা করেছি, আগামীতেও ঠিক একই ভাবে মোকাবিলা করবো ইনশাআল্লাহ।  

তিনি আরও বলেন, আমরা বিএনপিকে অনুমতি দিয়েছিলাম সভা করার জন্য। সরকারের সমালোচনা করুক। দেশে গণমাধ্যম রয়েছে। কোথাও কোনো বাধা নেই। তাদের তো কোনো সমস্যা নেই। তারপরও তারা কেন এ পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে? এ পরিস্থিতি আমরা কোনোভাবেই হতে দেবো না। মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা এবং দেশের উন্নয়নকে অব্যাহত রাখার জন্য আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যা করা দরকার, তাই করবে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা দেশে শান্তি চাই। আমরা চাই, দেশে সুষ্ঠু, সুন্দর ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন। এটি করার জন্য প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আগে যাই হয়ে থাক, পরিস্থিতির কারণে হয়েছে। আমরা চেষ্টা করেছি, সুন্দর পরিবেশ রাখার জন্য। বিএনপির বাড়াবাড়ির জন্য সম্ভব হয়নি। আগামীতে আমরা চেষ্টা করবো, ছোট খাটো যেসব ঘটনা ঘটেছে, তা বিএনপির উসকানিমূলক বক্তব্যের কারণে। তারা পুলিশের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েছে। পুলিশ আত্মরক্ষার জন্য চেষ্টা করেছে। আমি মনে করি, বিএনপির মধ্যে শুভ বুদ্ধির উদয় হবে। তারা এ পথ থেকে নিবৃত হবে।