সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪

|

শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

টাকা না দিলে বাড়ির সামনে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ হয়না!

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:০৯, ১৮ জুন ২০২৪

টাকা না দিলে বাড়ির সামনে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ হয়না!

বর্জ্য

নারায়ণগঞ্জে টাকা না দিলে বাড়ির সামনে কোরবানির বর্জ্য অপসারণে অনীহা জানাচ্ছেন পরিচ্ছন্ন কর্মীরা। অনেকটা বাধ্য হয়ে তাদের খুশি করেই বর্জ্য অপসারণ করাতে হচ্ছে শহরবাসীকে।

মঙ্গলবার (১৮ জুন) ও সোমবার (১৭ জুন) দুদিন শহরের বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দারা এমন অভিযোগ করেছেন। শহরের ১৩ নং ওয়ার্ডে সরেজমিনে এমন অভিযোগের প্রমান পাওয়া গেলে পরিচ্ছন্ন কর্মীর কাছে জানতে চাইলে তিনি দ্রুত ময়লা অপসারণ করেন। তবে তিনি চা খাওয়ার জন্য ৫শ টাকা নিয়ে যান। 

জানা যায়, শহরের কলেজ রোড, চাষাঢ়া, জামতলাসহ বিভিন্ন এলাকায় ঈদের দিন বিকেল থেকে বর্জ্য অপসারণ শুরু করে ময়লা অপসারণকর্মীরা। এসময় ট্রলি নিয়ে এসে ময়লা নিয়ে যাবার আগে কোরবানি দেয়া ব্যক্তিদের কাছে অর্থ দাবি করেন পরিচ্ছন্ন কর্মীরা। এসময় যারা অর্থ দিতে অস্বীকৃতি জানায় তাদের বাড়ির সামনে বর্জ্য রেখে আশেপাশের বর্জ্য অপসারণ করে চলে যায় তারা। অনেকটা বাধ্য হয়েই অর্থ দেন তারা।

শহরের জামতলা হাজী ব্রাদার্স রোড এলাকায় এমন অভিযোগ পেয়ে ঐ পরিচ্ছন্ন কর্মীর পরিচয় চাইলে তাইলে তিনি নাম না বলে বলতে থাকেন, একটাই তো ঈদ, এত বড় গরু দিতে পারলে আমাদের তো কিছু টাকা দেয়াই যায়। এসময় এক ভবন থেকে ৫শ টাকা নিতে দেখা যায় ঐ ব্যক্তিকে। পরে তাকে কোরবানির পশুর গোশত হাদিয়া দিলেও তিনি অর্থ দাবি করেন। পরে তাকে ২শ টাকা দিলে তিনি ময়লা অপসারণ করেন। একই সময় পাশের এক ভবনে অর্থ না দেয়ায় ময়লা অপসারণ না করেই চলে যেতে থাকলে তিনি তাকে ডেকে অর্থ দিয়ে ময়লা অপসারণ করান।

এদিকে একই সড়কের ঈদের দিনের বর্জ্য ঈদের পরের দিনও সড়কের পাশে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এসময় পরিচ্ছন্ন কর্মীদের বললেও তারা সেটি পাশ কাটিয়ে অন্য বর্জ্য নিয়ে চলে যান। পরে বিষয়টি সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী জাকির হোসেনকে অবহিত করলে তিনি দ্রুত বর্জ্য অপসারণ করান এবং এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানান।