শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২

|

অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

ভরণ পোষণ না দেয়ায় ছেলে ও পুত্রবধূর নামে মামলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ২৩:০১, ৩ অক্টোবর ২০২২

ভরণ পোষণ না দেয়ায় ছেলে ও পুত্রবধূর নামে মামলা

প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ভরণ- পোষণ না দেওয়ায় ছেলে ও ছেলের স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে মনোয়ারা বেগম (৫৩) নামক এক নারী।

সোমবার (৩ অক্টোবর) মনোয়ারা তার ছেলে মোঃ মহসীন (৩০) ও ছেলের স্ত্রী সোনিয়া বেগমের (২৭) বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন। বাদী মনোয়ারা বেগম চট্রগ্রাম জেলার ডমলমুরিং থানার রফিকুল ইসলামের স্ত্রী। 

মামলার বাদী জানায়, বাদীর স্বামী রফিকুল ইসলাম বাস চালক ছিলেন। দীর্ঘ ১২-১৩ বছর পূর্বে বাদীর ছেলে মহসিন প্রেম করে পরিবারের কাউকে না জানিয়ে সোনিয়া বেগমকে বিয়ে করে। বিয়ের দুই বৎসর পর ছেলে তার স্ত্রীকে নিয়ে ফতুল্লা মডেল থানার রামারবাগ কাঠেরপুল এলাকায় কর্মের সন্ধানে চলে আসে। এখানে এসে ছেলে টেইলারিংয়ের কাজ করে এবং ছেলের স্ত্রী গার্মেন্টসে চাকুরী করে কাঠেরপুলস্থ ফজল হকের বাড়িতে ভাড়ায় বসবাস করে আসছিলো। এরই মধ্যে সাত বৎসর পূর্বে বাদীর স্বামী নিখোজ হয়। তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। এরপর থেকে মাঝে মাঝে বাদী চট্রগ্রাম থেকে ছেলের নিকট বেড়াতে এসে আবার চলেও যেতো। দুই বছর পূর্বে বাদী তার ছেলের নিকট চলে আসে। এখানে এসে সে একটি গার্মেন্টসে চাকুরি করে একই বাসায় ভাড়ায় বসবাস করে আসছিলো। গত দুই মাস পূর্বে সে অসুস্থ হয়ে পরলে ছেলের নিকট ভরন- পোষনের দাবী করলে বাদীকে বাসা থেকে বের করে দেয়। তারপর থেকে বাদী রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে ফিরছিলো। সর্বশেষ রোববার রাত সাতটার দিকে বাদী ছেলের বাসায় গিয়ে ভরন পোষনের দাবী করলে ছেলে ও ছেলের স্ত্রী বাদীকে গালমন্দ করে বাসা থেকে বের করে দেয়।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিজাউল হক দিপু জানান, একটি মামলা হয়েছে, বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।