মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪

|

আষাঢ় ৩১ ১৪৩১

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

সোনারগাঁ থানায় মামলা করায় দোকানীকে কুপিয়ে জখম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ১১:৩৯, ১৬ জুন ২০২৪

সোনারগাঁ থানায় মামলা করায় দোকানীকে কুপিয়ে জখম

প্রতীকী ছবি

সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরে হামলার শিকার হয়েছেন সোনারগাঁ থানায় দায়ের করা মামলার বাদি নুর নবী ভূঁইয়া। গতকাল শনিবার দুপুরে জামপুর ইউনিয়নের বেলাব গ্রামে বাড়ি ফিরে তার মুদি মনিহারী দোকান খুলে বসার এক পর্যায়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা তাকে কুপিয়ে মারাক্তকভাবে আহত করে। হামলাকারীরা দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করে। আহত নুর নবী ভূঁইয়াকে প্রথমে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের বেলাব গ্রামের নুর নবীর কাছ থেকে দীর্ঘদিন ধরে পেরাবে গ্রামের চিহ্নিত চাঁদাবাজ রিয়েল ও তার লোকজন নূর নবীর কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল। দাবিকৃত চাঁদা না দেওয়ায় তাদের সাথে পূর্ব শত্রæতা শুরু হয়। গত বুধবার বিকেলে রিয়েলে নেতৃত্বে শিহাব, রফিক, সিপন, রাব্বীসহ ১০-১২জনের একটি দল নুর নবী ভূঁইয়ার বাড়িতে হামলা চালিয়ে নূর নবী, তার ভাই নূহ নবী, সৌরভ সালমান ফার্সী ও মাওলানা সাখাওয়াত হোসেনকে পিটিয়ে আহত করে। আহতরা সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন। এ ঘটনায় নূর নবী ভূঁইয়া বাদি হয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। গতকাল শনিবার সকালে তারা তিনদিন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরেন। বাড়ি ফিরে দুপুরে নূর নবী ভূঁইয়া তার দোকান খুলে বসার এক পর্যায়ে পুনরায় রিয়েলের নেতৃত্বে ৮-১০জনের একটি দল মামলার বাদি নূর নবী ভূঁইয়াকে কুপিয়ে আহত করে। আত্মীয় স্বজন  ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে তার অবস্থার মূমূর্ষ হওয়ায় তাকে ঢাকা  মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। 

অভিযুক্ত রিয়েলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, চাঁদা দাবি বিষয়টি ভিত্তিহীন। তবে তাদের সঙ্গে পূর্ব শত্রæতায় সংঘর্ষ হয়। এতে আমরাও আহত হয়েছি। চিকিৎসা নিয়েছি। 

সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক তদন্ত মহসিন বলেন, মামলার বাদিকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনাটি আমার জানা নেই। তবে এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি। পুনরায় মামলা করতে চাইলে আমরা মামলা গ্রহন করবো।