রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

|

চৈত্র ৩০ ১৪৩০

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

পাল্টা কমিটি বা তালাকান্ড ঘটিয়ে লাভ হবেনা, ঈদের পর সম্মেলন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ২৩:১৪, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

পাল্টা কমিটি বা তালাকান্ড ঘটিয়ে লাভ হবেনা, ঈদের পর সম্মেলন

ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের আওতাধীন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ৯ টি ওয়ার্ড কমিটি রমজান মাসের আগেই বা রমজানের মধ্যে ঘোষণা করার জন্য প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ঈদের পর থানা কমিটি গঠনে সম্মেলনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। 

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) এক আলোচনায় এ তথ্য জানান মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন। 

গত ১২ ফেব্রুয়ারি রাতে মহানগর আওয়ামী লীগের ১৭টি ওয়ার্ডের কমিটি ঘোষণা করা হয়। মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা মহানগর আওয়ামী লীগের ১১ থেকে ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের কমিটি ঘোষণা করেন।

এর আগে শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের দেওভোগে ১৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে পদবঞ্চিত নেতাকর্মীদের এক বৈঠকে মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি আনোয়ার হোসেনকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগ নেত্রী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। এসময় এ ওয়ার্ডের পূর্বের কমিটি বহাল ঘোষণা করেন আইভী।

এসময় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, আপনারা মনের দুঃখ মনের মধ্যে রেখেছেন কেন এত? আপনাদের তো আমাকে আগে ডাকা উচিত ছিল। আমি রাজনীতি করি আমাকে অনেক কাজ করতে হয়। এই ওয়ার্ডের নতুন কমিটির এপন ও চঞ্চলের বিরুদ্ধে কিছু বলবো না, ওরা ছোট ভাই অবশ্যই ওরা নেতা হওয়ার যোগ্যতা রাখে। কিন্তু এই আওয়ামী লীগের এটা কী লজ্জাজনক ঘটনা! এই আনোয়ার কাকা (মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি) তার প্রতিহিংসাপরায়ণ মনোভাব নিয়ে মনোয়ারকে ঘায়েল করার জন্য, দেওভোগ আওয়ামী লীগকে বোঝানোর জন্য যে আমি যাকে চাই সেই হতে পারে। এই কারণে তিনি এই দুটি নাম ঘোষণা করে আমাদের সবাইকে অসম্মানিত করেছেন। যারা এই দেওভোগকে এইভাবে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন আমাদের সেই পূর্বপুরুষকে অসম্মানিত করেছেন তিনি। উনাকে (আনোয়ার) আমি আজকে এখানে দাঁড়িয়ে দেওভোগের মানুষ হিসেবে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করলাম।

বৈঠকের পরেই ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী সাব্বির আহমেদ সাগরের নেতৃত্বে পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা সন্ধ্যা ৭টার দিকে মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এসে তালা লাগিয়ে দেন। 

এ সময় তারা ঘোষিত ওয়ার্ড কমিটি ভুয়া ও সেখানে যোগ্যদের বঞ্চিত করা হয়েছে বলে দাবি করেন। পরে নেতাকর্মীরা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন এবং তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন।

পরে রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় কার্যালয়ে তালা খুলে প্রবেশ করেন তালা লাগিয়ে দেওয়া নেতাকর্মীরা। নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান ও সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর কথায় তারা তালা খুলে দেন বলে জানান তালা লাগিয়ে দেয়া ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী সাব্বির আহমেদ সাগর।

আনোয়ার হোসেন বলেন, কমিটি গঠন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে নির্বাচনের অনেক আগেই। আমরা নির্বাচনের আগে কেন্দ্রে কমিটিগুলো জমা দিয়েছিলাম। নির্বাচনের পর আমরা ঘোষণা করেছি ১৭ টি ওয়ার্ড। এখানে পাল্টা কমিটি বা তালাকান্ড ঘটিয়ে কোন লাভ হবেনা। 

তিনি বলেন, আমরা চিন্তা করছিলাম থানাগুলোর সম্মেলনের কিন্তু ঈদের আগে তা সম্ভব হবেনা হয়তো। আমরা ঈদের আগে রমজানের আগে বা রমজানে চেষ্টা করবো সিদ্ধিরগঞ্জের ৯টি ওয়ার্ড কমিটি ঘোষণা করার। এর মধ্যে আমরা কাজ শুরু করে দিয়েছি ওয়ার্ডগুলোর। যোগ্য নেতৃত্ব উঠে আসবে।