শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

|

মাঘ ১৯ ১৪২৯

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

সুপার শপ উদ্বোধন বাজার মূল্য থেকে  সর্বোচ্চ ৩০ পার্সেন্ট হ্রাসে নিত্য প্রয়োজনী সামগ্রী পাবে গার্মেন্ট কর্মীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ২২:৪৪, ১৭ ডিসেম্বর ২০২২

সুপার শপ উদ্বোধন বাজার মূল্য থেকে  সর্বোচ্চ ৩০ পার্সেন্ট হ্রাসে নিত্য প্রয়োজনী সামগ্রী পাবে গার্মেন্ট কর্মীরা

সুপার শপ উদ্বোধনে

গার্মেন্ট শ্রমিকদের জন্য বাজার মূল্য থেকে ১০-৩০ পার্সেন্ট মূল্য হ্রাসে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্যী বিক্রি উদ্যোগ নিয়েছে একটি শিল্প প্রতিষ্ঠান। গতকাল শনিবার বিকালে নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লা বিসিক ক্রোনি গ্রুপ অফ ইন্ডাষ্ট্রীজ অভ্যন্তরে একটি সুপার শপ উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে শ্রম বান্ধব ওই মূল্য হ্রাসের যাত্রা শুরু হয়। 

উদ্বেধানী অনুষ্ঠানের ক্রোনী গ্রুপ চেয়ারপার্রসন এবং বিজিএমিএর পরিচালক নীলা হোসনে আরা বলেন,  ক্রোনী গ্রুপের কারখানায় প্রতিষ্ঠিত “আপন বাজার” সুপার শোপ থেকে প্রতিষ্ঠানের কর্মরতরা ১০ থেকে ৩০ পার্সেন্টর কমে নিত্য প্রয়োজনী সামগ্রী ক্রয় করতে পারবে। প্রতিষ্ঠানের প্রায় ১০০০০ শ্রমিকদের জন্য এই ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।  আর উদ্যোগ বাস্তবায়ন ও চলমান রাখতে ইতমধ্যে দ্য কটন গ্রুপ, আপন ওয়েলবিং এবং ক্রোণী গ্রুপের মাঝে একটি সমোঝোতা সাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়েছে। দ্য কটন গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুরিলে ডিজেস্ট এবং আপন ওয়েল্বিং এর হেড অফ গ্রোথ ইয়াসির আরাফাত সমোঝোতা স্মারকপত্রে স্বাক্ষর প্রদান করেছেন। 

তিনি আরও বলেন. এতে ১০০০০ শ্রমিকদেরকে ৩০% কম মূল্যে ৭৪৩ টাকায় চাল,ডাল,তেল,লবন এবং নুডুলস এর একটি সমন্বিত বাস্কেট সরবরাহ করার ব্যবস্থা গ্রহন করেছে যার বর্তমান বাজার মূল্য ৯৯১ টাকা। এছাড়াও, যেসব শ্রমিকগণ প্রতিনিয়ত আপন বাজার থেকে পণ্য ক্রয় করেবে তারা আপন ওয়েলবিং এর মাধ্যমে বাৎসরিক ২০০০০ টাকার ইনস্যুরেন্স সুবিধা গ্রহন করতে পারবে। 

দ্য কটন গ্রুপের এমডি মুরিলে ডিজেস্ট তার বক্তব্যে বলেন,“ক্রোনী গ্রুপের এই ন্যায্য মূল্যের দোকানে আমাদের বিনিয়োগ সত্যিকার অর্থে শ্রমিকদের এবং তাদের পরিবারের জীবনমান উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখবে, সেই সাথে নির্দিষ্ট পরিমাণ পণ্য ক্রয় করার ফলে তারা বাৎসরিক ইনস্যুরেন্স সুবিধা (পরিবারসহ) উপভোগ করতে পারবে। 

আপন বাজারের সিও ইয়াসির আরাফাত বলেন, আমরা ২৯টি ন্যায্যমূল্যের দোকান যা আপন বাজার নামে তৈরি পোশাক শিল্পের বিভিন্ন কারখনায় পরিচালিত করতে পেরেছি। এখানে প্রায় ১০০০০ শ্রমিক এখানে ১০%-৩০% ছাড়ে বাকীতে বাজার করতে পারবে যা তাদের পরবর্তী মাসের বেতনের সাথে সামাঞ্জস্য করা হবে।