সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪

|

শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

বুড়িগঙ্গায় তেলের ট্রলার আগুন, বেঁচে নেই ভেতরের শ্রমিকদের কেউ 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ১৭:৫৫, ২৬ জুন ২০২৪

বুড়িগঙ্গায় তেলের ট্রলার আগুন, বেঁচে নেই ভেতরের শ্রমিকদের কেউ 

ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বুড়িগঙ্গা নদীতে তেলের ড্রামবাহী ট্রলারে আগুন লেগে তেলের ড্রামগুলোতে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটনায় ট্রলারের ভেতর আটকা পড়া কোন শ্রমিক বেঁচে নেই বলে ধারণা ডিপো সংশ্লিষ্টদের।

বুধবার (২৬ জুন) দুপুর দেড়টায় মেঘনা ডিপোর জেটি সংলগ্ন বুড়িগঙ্গা নদীতে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটে। বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এর আগে দুপুর ২ টা থেকে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে ফায়ার সার্ভিসের ১০ টি ইউনিট।

এদিকে বিকেল ৪ টা ১২ মিনিটের দিকে ট্রলারটিকে কোন শ্রমিকের লাশ আছে কিনা খুঁজতে নামতে যাবার পূর্বে হটাৎ করেই আবারো আগুন জ্বলে উঠে। তাৎক্ষনিক ১৫ মিনিট ধরে চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

এর আগে আগুন নিয়ন্ত্রনের পর ট্রলার থেকে এক শ্রমিকের পুড়ে যাওয়া লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাতক্ষনিকভাবে তার নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। আরেক শ্রমিককে ঘটনার পর পরই ঢাকায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়া ডিপোর একাধিক শ্রমিক জানান, তারা সেখানে বিস্ফোরণের সময় এক শ্রমিককে ছিটকে পাশের নারকেল গাছে উঠে যেতে দেখেন। সেখান থেকে ঐ শ্রমিক পানিতে পড়ে গেলে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়। এ ছাড়া ট্রলারে বিস্ফোরণের পর পুরো আগুন লেগে যায়। ইতোমধ্যে একজনের লাশ তারা দেখলেও বাকিদের হদিস নেই। একজনের লাশও পুড়ে গেছে। বাকিরা ট্রলারে থাকায় কারো বেঁচে থাকার সম্ভাবনা নেই মনে করছেন তারা।

এদিকে এ ঘটনায়, ওই ট্রলারের চার শ্রমিকের মধ্যে একজন নদীর পাড়ে উঠতে পারলেও বাকিরা নিখোঁজ ছিল। এর মধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

ট্রলারে করে তেল নিয়ে তারা বরিশাল মনপুরায় যাচ্ছিলেন বলে জানিয়েছেন মেঘনা ডিপোর ইনচার্জ জিয়াউর রহমান।

ডিপো সংশ্লিষ্টরা জানান, ট্রলারে ৪ জন শ্রমিক ছিলেন। তারা ভেতরে রান্না করছিল। এসময় সেখান থেকে হয়ত আগুন লাগতে পারে। ট্রলারটিতে ৮৬ ড্রাম পেট্রোল ও ৭০ ড্রাম ডিজেল ছিল। প্রায় সব তেলবাহী ড্রাম অগ্নিকাণ্ডে বিস্ফোরিত হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক ফখরুদ্দিন জানান, আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। আমরা ইতোমধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার করেছি। বাকিদের ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোন তথ্য নেই।