শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

|

মাঘ ১৯ ১৪২৯

Advertisement
Narayanganj Post :: নারায়ণগঞ্জ পোস্ট

আড়াইহজারে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে মাটি বিক্রি, অভিযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ২২:৪৫, ২৯ নভেম্বর ২০২২

আড়াইহজারে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে মাটি বিক্রি, অভিযোগ

ফসলি জমির মাটি বিক্রির অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজাওে একাধিক স্থানে ফসলি জমির মাটি বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় গ্রামবাসী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। গত ১৭ নভেম্বর  অভিযোগটি দিলেও মঙ্গলবার পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। 

সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলার গোপালদী পৌরসভার লক্ষিবরদী  নয়াপাড়া গ্রামের অধিকাংশ ফসলি জমি ড্রেজারের কবলে পরে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ড্রেজার দিয়ে মাটি কাটার ফলে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। অপরিকল্পিতভাবে ড্রেজার দিয়ে মাটি খনন করার কারনে চারপাশের মাটি দেবে ভেঙ্গে পড়ছে। মাটি পরিবহনের জন্য মাইলের পর মাইল পাইপ সংযোগ দিয়ে চলছে পুকুর কিংবা অন্য ফসলি জমি ভরাটের কাজ। 
 অবৈধ ড্রেজিংয়ের কারণে ৫০/৬০ ফুট গভীর থেকে মাটি ও বালি উত্তেলনের কারণে আশ-পাশের তিন ফসলের জমিগুলো ডোবায় পরিণত হচ্ছে। তাছাড়া দুই সেচ পাম্পে প্রায় ২/৩ বিঘা  জমিতে ইরি ধান চাষ হতো কিন্তু বর্তমানে তা আর সম্ভব হয় নয়। 

অভিযোগ রয়েছে, জমির মালিক বিএনিপ নেতা  মোহাম্মদ আফজাল ভূঁইয়ার সাথে মিলে মিশে গোপালদী পৌর যুবলীগের সভাপতি  মোহাম্মদ বিল্লাল ড্রেজার দিয়ে ফসলী জমি থেকে মাটি কেটে অন্যত্র বিক্রি করে দিচ্ছে। গ্রামের নিরিহ মানুষ কয়েক দফায় বাঁধা দেওয়ার পরও তারা নিয়মিত ভাবে বালু উত্তোলন করে যাচ্ছে এবং পাশের জমির লোকেদের নানারকম হুমকি প্রদর্শন করছে।

গ্রামবাসী জানান, এমন ভাবে চলতে থাকলে এলাকার নির্মানাধীন  ঘরবাড়ি ও বিলীন হবার পথে। তাই কর্তৃপর্ক্ষের কাছে জোর দাবি এই গ্রামের কৃষকদের ড্রেজার সরিয়ে তাদের ফসলি জমিতে ফসল চাষের সুযোগ করে দেওয়া।   

গোপালদী পৌর যুবলীগের সভাপতি বিল্লাল হোসেনের সাথে মুঠাফোনে কল দিলেও তিনি  রিসিভ করেনি। 

আড়াইহাজার উপজেলা  নির্বাহী অফিসার রফিকুল ইসলাম বলেন, নিজের কিংবা পরের জমির মাটি বিক্রি করার কোন নিয়ম নেই। আমরা ব্যবস্থা নিব।